Homeঅনলাইন ইনকামব্লগিং থেকে আয় করার সহজ উপায়

ব্লগিং থেকে আয় করার সহজ উপায়

অনলাইনে আয় করার একটি অন্যতম মাধ্যম হল ব্লগিং। আপনি ব্লগিং এর মাধ্যমে অনেক টাকা ইনকাম করতে পারবেন। যেমন, অ্যাড সেল, গুগল এডসেন্স, এফিলিয়েট মার্কেটিং, নিজস্ব প্রোডাক্ট সেল, সার্ভিস সেল করা, এমনকি অনলাইনের মাধ্যমে কারোর প্রডাক্ট কে প্রমোশন করে দেওয়া।

আপনার ব্লগের মাধ্যমে আরেকজনের  ব্যবসাকে মার্কেটিং করা ইত্যাদি হতে পারে ব্লগিং এর একটি অন্যতম প্ল্যাটফর্ম। বিশ্বে অনেক ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা ব্যবসায়ীরা যারা অনলাইনের মাধ্যমে তাদের নিজস্ব প্রোডাক্ট গুলোকে সেল করছে এবং তাদের ব্যবসাকে বর্ধিত করছে ব্লগের মাধ্যমে।

ঘরে বসে ব্লগিং থেকে আয় করার সহজ উপায়

আপনি এখন যে লেখাটি পড়ছেন এটিও একটি ব্লগ সাইট। অতএব বুঝতেই পারছেন বিষয়টা কি। লেখালেখি যদি আপনার আগ্রহ থাকে, তাহলে আপনি খুব সহজেই এখান থেকে ইনকাম করতে পারবেন। আপনার যে বিষয়ে আগ্রহ, জ্ঞান বা অভিজ্ঞতা সবচেয়ে বেশি সেই বিষয়ে ব্লগিং করলে তা সবথেকে বেশি কাজে দেয়।

ব্লগিং জিনিসটা কি?

ব্লগিং অনলাইন আয়ের বেশ পুরাতন একটি মাধ্যম। কিন্তু এটি অনেক কার্যকরী একটা পদ্ধতি। এই পদ্ধতিতে বেশ ভালো অঙ্কের টাকা প্রতি মাসেই আয় করা সম্ভব। এটি মূলত একটি ডিজিটাল নিউজ পেপার এর মতো। আপনি আপনার মন মতো কোনো একটি বিষয় নিয়ে লিখবেন। এবং যার ওই বিষয়টি জানার দরকার সে এসে পড়ে যাবে।

অনলাইনে ওয়েবসাইট খুলে নিয়মিত ভাবে লেখালেখি করাকেই ব্লগিং বলে। বর্তমানে এখন অনলাইনে ব্লগিং করে ইনকাম করা তেমন সহজ না হলেও যারা লেখালেখিতে ভালো দক্ষ্তা দেখাতে পারছে তাদের জন্য বর্তমানে ব্লগিং করে আয় করাটা একটা প্যাশন হিসেবে বলা যায়।

ইউটিউব চ্যানেল খোলার নিয়ম (A to Z) গাইডলাইন

ব্লগিং থেকে আয় করার পাঁচটি সহজ উপায়

এখন বর্তমানে একটি ব্লগ থেকে বিভিন্ন ভাবে অনলাইন থেকে ইনকাম করা সম্ভব। ব্লগ থেকে অনলাইন ইনকামের যতগুলো পদ্ধতি আছে, আর যে পদ্ধতিগুলো বেশ জনপ্রিয় সেগুলো দেখানো হলোঃ

  • ব্লগে বিজ্ঞাপন দেখিয়ে ইনকাম।
  • গুগল এডসেন্স দিয়ে আয়।
  • ব্লগে প্রোডাক্ট ব্রান্ডিং করে অর্থ আয় করা যায়।
  • এফিলিয়েট মার্কেটিং করে ইনকাম করা।
  • অন্যকারো ব্যাক্তিগত বা প্রতিষ্ঠানে ব্লগ লিখে আয় করা যায়।

আপনাদের মধ্যে অনেকের লেখালেখির অনেক ভালো অভিজ্ঞতা থাকে।  আপনাদের মধ্য এরকম অনেকেই আছেন, যারা চাকরি করছেন কিন্তু ভালো আর্টিকেল লিখতে ভালোবাসেন।

আপনি যে বিষয়ে সবথেকে পারদর্শী সেই নিশেই  কাজ করতে পারেন। নিশ বলতে মূলত নির্দিষ্ট কিছু বিভাগ বোঝায় যেমন, খেলাধুলা, টেকনোলজি, আইন, রান্না, জীবনী, ভ্রমন, ইত্যাদি।

উদাহরণ স্বরূপ বলা যায় ভ্রমনের ক্ষেত্রে আপনি কোনো এক জায়গায় ভ্রমনে গিয়ে কি কি অভিজ্ঞতা হয়েছিলো বা কি কি বিশয় সম্পর্কে অবগত হয়েছেন সেটি নিয়ে একটি বিস্তারিত ব্লগ লিখে ফেলতে পারেন।

গুগল এডসেন্স দিয়ে আয়

সবথেকে সহজ ও প্রচলিত উপায় হচ্ছে আপনার ব্লগে বিজ্ঞাপন দেখিয়ে আয় করা। যদি আপনি প্রথমবারের মত আপনার ব্লগ থেকে আয়ের কথা থাকেন তাহলে বেছে নিন এই উপায়টি। সারা পৃথিবীতে ব্লগে বিজ্ঞাপন প্রকাশ করে তা থেকে আয় একটি সচল চালু উপায়, আর আমাদের দেশেও তা সমান তালে জনপ্রিয়।

আপনার ব্লগে বিজ্ঞাপন প্রকাশ করতে হবে, পাঠক যদি সেই বিজ্ঞাপনে ক্লিক করে তাহলে মিলবে কমিশন। এর  জন্য আপনার দরকার পরবে একটি গুগল এডসেন্সের। গুগলের AdSense জনপ্রিয় বিজ্ঞাপন নেটওয়ার্ক।

ব্লগে লোকাল বিজ্ঞাপন দেখিয়ে আয়

BidVertiser, Infolinks বা লোকাল এর মতো অন্য নেটওয়ার্কও  বিজ্ঞাপন বসিয়ে ইনকাম করতে পারবেন।

কত টাকা আয় হতে পারে ?

প্রতি ক্লিকে ০.০১ থেকে ৫০ ইউএস ডলার পর্যন্ত ইনকাম হয়। এই আয় আপনার ব্লগের বিষয়ের ওপরই নির্ভর করে, কারণ ব্লগের বিষয়ের ভিত্তিতেই বিজ্ঞাপনগুলো দেওয়া হয়। আপনার আয়ের পরিমাণ নির্ভর করছে কতজন ঐ বিজ্ঞাপনটিতে ক্লিক করছেন তার ওপর।

ব্লগে প্রোডাক্ট ব্রান্ডিং করে অর্থ আয়

সবথেকে স্থায়ী ও নিশ্চিত আয়ের পদ্ধতি হচ্ছে ব্লগের মাধ্যমে নিজের পণ্য বিক্রি বা ব্রান্ডিং করা। এটা থেকেই আয়ের ওপর সবথেকে বেশি নিয়ন্ত্রণ রাখা সম্ভব হয়।

যেহেতু পণ্য ডিজাইন, দাম নির্ধারণ, মার্কেটিং পুরোটাই ব্লগার নিজেই করে থাকেন তাই আয়ও তাঁর ওপরই নির্ভর করে। নিজের দক্ষতা অনুযায়ী একটি পণ্য বা পরিষেবা তৈরি করুন। এরপর ব্লগের মাধ্যমে সেটি বিক্রি করে আয় করতেন থাকুন।

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং 

ব্লগে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করেও ইনকাম করতে পারবেন। বর্তমানে সারা বিশ্বেই অনেক জনপ্রিয় একটি অর্থ উপার্জনের মাধ্যম হয়ে উঠেছে। বাংলাদেশেও আস্তে আস্তে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটার এর সংখ্যা বেড়েই চলেছে।

মূলত অন্যের প্রোডাক্ট প্রোমোট ও বিক্রি করার প্রক্রিয়াকে বলা হয়ে থাকে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং। অর্থাৎ অন্য আরেকজনের প্রোডাক্ট বা সার্ভিস আপনি আপনার ব্লগ বা ওয়েবসাইট প্রোমোট করতে থাকবেন।

আপনার অ্যাফিলিয়েট লিংক থেকে তৈরী হওয়া লিড, সেলস অথবা লিংক ক্লিক এর জন্য আপনি একটি  কমিশন পাবেন – এটিই মূলত অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর মূল ধারণা।

বিশ্বজুড়ে হাজার হাজার ই-কমার্স সাইট আছে এদের ভেতরে অনেকগুলো আবার সারা বিশ্বেই পন্য ডেলিভারি করে থাকে। এইসব E-Commerce সাইটে প্রত্যেকটাতে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং নামে একটি সেকশন খোলা রয়েছে।

অনলাইনে আয় করার ১০ টি সেরা উপায়

আপনি এসকল ওয়েবসাইটে অ্যাকাউন্ট খুলে খুব সহজেই তাদের মেম্বার হয়ে যেতে পারবেন। নির্দিষ্ট ই-কমার্স E-Commerce সাইট থেকে আপনি বিভিন্ন পন্যের বিবরন সহ ওই লিঙ্ক কপি করে ব্লগে প্রচার করতে হবে হবে।

এবার ওখানে থেকে ওই লিঙ্কে ক্লিক করে যদি কেও পন্যটি ক্রয় করে থাকে তাহলে আপনি সেটার থেকে নির্দিষ্ট পরিমানের একটি কমিশন পাবেন।

অন্যকারো ব্যাক্তিগত বা প্রতিষ্ঠানে ব্লগ লিখে আয়

অন্য কারও ব্লগে লেখালেখি করেও তাদের থেকে লেখার বিনিময়ে আপনি ইনকাম করতে পারেন।

শেষ কথাঃ

এখন মূল বিষয় হলো আপনি এগুলো কোথায় লেখা লিখি করবেন। একটা ব্লগ ওয়েবসাইট বানিয়ে কাজ শুরু করতে হবে। সব থেকে ভালো হয় আপনি যদি একটি ব্লগ সাইট নিজে বানিয়ে নিতে পারেন। এখন অনেক সহজেই কোনো খরচ ছাড়াই ব্লগ সাইট বানানো যায়। তবে ফ্রি সাইটগুলো কে মানুষ একটি কম বিশ্বাস করে থাকে।

তাই আমাদের পরামর্শ থাকবে প্রথমে অল্প কিছু টাকা খরচ করে ডোমেন ও হোস্টিং কিনে আকর্ষণীয় একটি সাইট তৈরি করুন। এরপর ওখানে লেখা লেখি শুরু করে দিন। দেখবেন খুব কম সময়ে বেশ ভালো ফল পাবেন।

এভাবে ব্লগিং করলে একসময় আপনার ব্র্যান্ডিং টা ভালো হবে এবং ইনকাম এর পরিমানও অনেক বেশি হবে। আর ভবিষ্যতে আপনার সাইট এর দামও অনেক বেশি হবে। ক্ষেত্র বিশেষে একটি ভালো সাইটের মূল্য কয়েক লক্ষ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে।

আর ফ্রি সাইট গুলোর ক্ষেত্রে গুগোল আপনাকে পুরো ডোমেইন দিবে না। আপনি সেক্ষেত্রে সাব ডোমেইন হিসাবে কাজ করতে পারবেন। এভাবে ব্লগ সাইট খুলে আপনি খুব সহজেই ব্লগস্পট দিয়ে ১০ মিনিটেই একটি ব্লগসাইট খুলতে পারেন।

আর এক্ষেত্রে আপনি মোবাইল এবং কম্পিউটার উভয় মাধ্যমেই সহজেই কাজ করতে পারেন। তাই আপ্যনারা যারা মোবাইলে অনলাইন ইনকামের কথা ভাবছেন, তাদের জন্যও এটি একটি সেরা সুযোগ হতে পারে।

তবে পাশাপাশি আপনার যদি ডিজিটাল মার্কেটিং এর উপর কিছুটা ধারনা থাকে তাহলে কিন্তু আপনি খুব সহজেই আপনার সেই ব্লগে প্রচুর পরিমাণে ট্রাফিক বা ভিজিটর আনতে পারবেন। এর মাধ্যমে আপনি কিন্তু আপনার ইনকামের পরিমাণ বহুগুণে বাড়িয়ে ফেলতে পারবেন খুব সহজেই।

এডু হেল্পস বিডি
এডু হেল্পস বিডিhttps://eduhelpsbd.com
এডু হেল্পস বিডি শিক্ষা বিষয়ক বাংলা কমউনিটি ওয়েবসাইট। এডু হেল্পস বিডি এর অন্যতম উদ্দেশ্য হলো বাংলাদেশের সকল শিক্ষার্থীদের মধ্যে একটা সুন্দর কমিউনিটি তৈরি করা। পাশাপাশি পড়াশোনার প্রয়োজনীয় তথ্য সেবা ও সঠিক দিকনির্দেশনা নিশ্চিত করা ও লেখাপড়া সংক্রান্ত বিভিন্ন সমস্যার সমাধান করা।
RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

আমাদের অনুসরণ করুন

16,985FansLike
10,000FollowersFollow
5,000FollowersFollow
2,458FollowersFollow
61,453SubscribersSubscribe

মন্তব্য সমূহ

spot_img

সমস্ত ক্যাটেগরি

শিক্ষা সংবাদ (40)শিক্ষা (37)জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় (34)ফলাফল (24)পরীক্ষা (22)ভর্তি তথ্য (15)ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড (10)এইচ.এস.সি (10)ফরম পূরণ (9)অনার্স (9)ডিগ্রি (8)বি সি এস (7)মতামত (6)সাত কলেজ (6)রুটিন (5)লেখালেখি (4)সময়সূচি (4)অনলাইনে আয় (4)অনলাইন ইনকাম (4)টেক নিউজ (4)এস.এস.সি (4)বিসিএস টিপস (3)প্রিলিমিনারী টু মাস্টার্স (3)শিক্ষক নিবন্ধন (3)বিসিএস প্রিপারেশন (3)প্রবেশপত্র (3)চাকরির খবর (2)শিক্ষক নিয়োগ (2)একাদশ ভর্তি (2)প্রশ্ন সমাধান (2)সিলেবাস (2)রিলিজ স্লিপ (1)কবিতা (1)ssc results 2024 (1)মেধা তালিকা (1)মাস্টার্স প্রাইভেট (1)এনটিআরসিএ (1)পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় (1)ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (1)আসন বিন্যাস (1)প্রাথমিক শিক্ষা (1)ফলাফল পুনঃমূল্যায়ন (1)বই পরিচিতি (1)কেন্দ্র তালিকা (1)সাবজেক্ট পরিচিতি (1)লেকচার শীট (1)বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় (0)বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (0)সরকারি চাকরি (0)বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় (0)পলিটেকনিক (0)মেডিকেল ও ডেন্টাল (0)সাধারণ জ্ঞান (0)ধর্মীয় শিক্ষা (0)পি.এস.সি (0)মডেল টেস্ট (0)জে.এস.সি (0)
error: Content is protected !!