শিক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে কিছু আলোচনা | আব্দুল্লাহ আল সাবির

0

ক আ খ A B দিয়ে আমাদের যাত্রা শুরু হয়। সেই মায়ের মুখের ভাষা থেকে আমরা নিজেকে শিখি নিজেকে জানি। মা যা শেখায় তাই শিখি হাটি হাটি পা পা যখন থেকে তারও আগে থেকে আমাদের শুরু হয়।

কিন্তু সমস্যা শুরু হয় যখন অন্যের অধিনে থেকে পড়াশোনা নামক অত্যাচার শুরু হয়। এতক্ষন ঠিক ছিল যতক্ষন শিখেছি। অত্যাচার ঠিক তখন থেকে যখন পড়াশোনা। পড়াশোনা না করে আমরা যদি শিখতে পারতাম এর চেয়ে অনেক ভালো কিছু জ্ঞান অর্জন করতে পারতাম।

আমরা জ্ঞানী হতে পড়ি না টাকা নামক বিষ উপার্জন করতে পাড়ি। পড়াটাকে মনে হয় যেন নিম রস। আর টাকা কে মনে হয় রসমালাই। মাঝখান থেকে প্রকৃত রস টাই আমরা হারিয়ে ফেলি। জানি না দোষ কি সিস্টেমের নাকি নিজের নাকি আমাকে যারা শিক্ষা নয় উচিত শিক্ষা দেয় তাদের।

পারিবারিক শিক্ষার উপর কোন শিক্ষা নাই যে যা বলুক ভাই। টাকার পিছনে ছুটি কিন্ত টাকার নাগাল পাই না। যদি জ্ঞানের পিছে ছুটতাম হয়তো পরিবেশের প্রেক্ষাপট পালটে যেত। আমরা যদি ইউরোপ আমেরিকার দিকে তাকাই তারা পড়ে না শিখে। তাই তারা উন্নত নয় উন্নতি করতে পেরেছে।

আমরা শিখতে চাই পড়তে না।কাজী নজরুল, রবীন্দ্রনাথ, জসীমউদ্দিন, বিদ্যাসাগর, সেক্স পিয়ার এরাই তো আমাদের আসল শিক্ষা। এদেরকে নিয়েও যদি শিক্ষা গ্রহন করতাম এর চেয়ে বেশি গুন ভালো পড়া না শিক্ষা পেতাম। জ্ঞানের আলো ছড়াবো এ যেন শুধু শ্লোগানে মানায় সঠিক পথে আমরা হাটি না।

অর্থই অনর্থের মুল। এই পাঠ্যক্রম থেকে আমাদের বের হয়ে আসা উচিত বলে আমি মনে করি। আমরা জ্ঞান আহোরন করতে চাই বিক্রি না। শিক্ষার ক্রেতা অনেক জ্ঞানের শ্রোতাও নাই। এ এক আজব অঞ্চল। শুধু চাই খাই যাই। গোটা সিস্টেম কে আমূল পরিবর্তন করা সময়ের দাবি।

লেখাঃ আব্দুল্লাহ আল সাবির, সরকারি বাঙলা কলেজ

পোষ্টটি লিখেছেন

8649781f24d7ae4a4ef87a19706789b1?s=100&d=mm&r=g
Abdullah al sabir

একটি মন্তব্য লিখুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য লিখুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন

twenty + 6 =